Tag Archive: বন্ধু

Jan 24

তিন বন্ধু

তিন বন্ধু মিলে জঙ্গলে হাঁটতেছে.
হঠাৎ তাদের সামনে একটা পরী এল.
পরী : তোমরা একটা করে ইচ্ছার কথা বল ,আমি তোমাদের সেই ইচ্ছা পূরণ করে দেব.
বন্ধু ১ : আমাকে পৃথিবীর সবচেয়ে সুন্দর বানিয়ে দাও.
পরী : দিলাম.
বন্ধু ২ : আমাকে দুনিয়ার সবচেয়ে হ্যান্ডসাম ছেলে বানিয়ে দাও.
পরী : দিলাম.
বন্ধু ৩ : এই দুইজনকে আগের মত করে দাও!!
মোরালঃ বন্ধু হয়ই হারামী ।

Jul 23

দুই বন্ধু

অপু এবং নাছের দুই বন্ধু একই অফিসে চাকরি করে।
অপু: দোস্ত, কত দিন ধরে ছুটি পাই না। কাজ করতে করতে হাঁপিয়ে উঠেছি। কিন্তু বস তো কিছুতেই ছুটি দেবেন না।
নাছের: হুমম্। আমিও হাঁপিয়ে উঠেছি। কিন্তু আমি বসের কাছ থেকে ছুটি নিতে পারব, দেখবি?
বলেই নাছের টেবিলের ওপর উঠে দাঁড়াল এবং ছাদ থেকে বেরিয়ে আসা একটা রড ধরে ঝুলতে শুরু করল। কিছুক্ষণ পর বস এলেন।
বস: এ কী নাছের! তুমি ঝুলে আছ কেন?
নাছের খুব স্বাভাবিক ভঙ্গিতে বলল, ‘স্যার আমি লাইট, তাই ঝুলে আছি।’
বস ভ্রূ কুঁচকে তাকালেন। কিছুক্ষণ ভেবে বললেন, ‘অতিরিক্ত কাজের চাপে তোমার মস্তিষ্ক বিকৃতি দেখা দিচ্ছে। তুমি বরং এক সপ্তাহের ছুটি নাও।’
নাছের অপুর দিকে তাকিয়ে মুচকি হেসে রুম থেকে বিদায় নিল।
অপু চেয়ে চেয়ে দেখল। নাছের বেরিয়ে যেতেই সেও নাছেরের পিছু নিল।
বস: সে কী! ছুটি তো ওকে দিয়েছি! তুমি কোথায় যাচ্ছ?
অপু: কী আশ্চর্য! লাইট ছাড়া কাজ করব কী করে?!

Jul 11

দুই বন্ধু

দুই বন্ধু পিকনিকে গেছে। রাতে একটি তাঁবু টানিয়ে তার ভেতর ঘুমিয়ে পড়ল। মাঝরাতে এক বন্ধু আরেক বন্ধুকে ডেকে তুলল।
১ম বন্ধু : দোস্ত,আকাশ দেখতাছস?
২য় বন্ধু : হ দোস্ত।দেখতাছি তো। ১ম
বন্ধু : কি বুঝলি?
২য় বন্ধু : আকাশে কোন মেঘ নাই। অনেক তারা দেখা যাচ্ছে। তার মানে, আজ বৃষ্টি হবে না।
১ম বন্ধু :ওরে আবহাওয়াবিদের বাচ্চা!!আমাগোর তাবুডা চুরি হইয়া গেছে, এইজন্যই আকাশ দেহা যাইতাছে !

Jun 19

দুই বন্ধু

দুই বন্ধু আলাপ করছে—
প্রথম বন্ধুঃ জানিস দোস্ত, আমার আব্বু না ভীষণ ভুলোমনা আর বেখেয়ালি। আমি প্রতিদিন আব্বুর মানিব্যাগ থেকে টাকা চুরি করি, আব্বু খেয়ালই করেনা।
দ্বিতীয় বন্ধুঃ মুখ গোমড়া করে বলল তবু তো ভালো! আমার আব্বু এতই ভুলোমনা যে .
মানিব্যাগে টাকা রাখতেই ভুলে যায় !

Jun 18

তিন বন্ধু

তিন বন্ধু হেলিকাপ্টারে করে যাচ্চিল হঠাৎ
১ম বন্ধু একটা কমলা নিচে ফেল দিল এরপর
২য় বন্ধু একটা আপেল নিচে ফেল দিল এরপর
৩য় বন্ধু একটা বোম নিচে ফেল দিল তারপর


তারা নিচে নেমে দেখল একটা ছেলে কাদছে
তখন তারা ছেলেটিকে প্রশ্ন করলো তুমি কাদছো কেন?
ছেলেটি বলল হঠাৎ উপর থেকে একটা কমলা এত জোরে আমার মাথায়পড়ল
মাথাটা ফেটে সাদা রক্ত বের হচ্চে
তারপর আরো কিছুখন হাটার পর দেখে একটা ছেলে কাদছে আবার হাসছে
তখন তারা ছেলেটিকে প্রশ্ন করলো তুমি কাদছো আবার হাসছো কেন?
ছেলেটি বলল হঠাৎ উপর থেকে একটা আপেল এত জোরে আমার মাথায়পড়ল
আর সেই বেথ্যায় আমি কাদছি আর হাসছি এই কারনে
আপেলটি আমার মাথায় পড়েছে আর নিজেকে নিউটন মনে হচ্চে
তারপর আরো কিছুখন হাটার পর দেখে আরেকটা ছেলে শুধু হাসছে
তখন তারা ছেলেটিকে প্রশ্ন করলো তুমি হাসছো কেন?
ছেলেটি বলল এত্ত জোরে একটা পাদ দিছি পিচনের
বিলিংটা উড়ে গেছে ।

Older posts «