Abbas Ali

Author's posts

**********বাংলার ৩২ ঘন্টার সংবাদ******

শুরুতেই
শিরোনাম ———-
↓↓
* রাস্তায়
উষ্টা খাওয়ার
প্রতিবাদে আগামিকাল
সমাবেশ
করবে মোখলেছ ।
* ডিম পাড়তে ব্যার্থ
হওয়ায়
আত্মহত্যার
সিদ্ধান্ত রাজধানীর
শতাধিক বয়লার
মুরগির।

* সাজু মিয়ার
বাড়ি থেকে একটি পুরাতন
বদনা উদ্ধার
করেছে বিজিবি ।
এটা নাকি রাজাকারদের
ছিল বলে জানান
তারা ।
* ছ্যাঁকা খেয়ে গান
গাইতে শুরু
করেছেন হ্যাপি, গান
শুনে দুই তিনজন
অজ্ঞান । *
আমেরিকা কে boom
মেরে
উড়িয়ে দিবে বাংলাদেশ,
এমন
মন্তব্যে আমেরিকা জুড়ে আতংক
ছরিয়ে পড়েছে।
* নেইমারের
বগলে কাতুকুতু
দিলেন
মেসি,
কিন্তুু আপনি হাসছেন
কেন ?
বললেন ওজিল
কিন্তুু মেসির
কাতুকুতু
না খেয়েই
অজ্ঞান
রোনালদো ।
*এদিকে উত্ত্রপাড়ার
আবুলের মেয়ে
মিচ. কুতকুতি বেগমের
friendrequest
accept না করায়
দক্ষিণ পাড়ার
আক্কাছের
বাড়িতে পারমাণবিক
বোমা হামলা করেছে মিচ.
কুতকুতি বেগম।
* বিশ্ববাজারে তেল
শুকিয়ে গেছে,
মফিজের পেটে তেল
চরবি এর
খনি পাওয়া গেছে। এই
তেল
উত্তলন
করা হলে বাংলা দেশে আর
কখনও
তেলের অভাব
হবেনা বলে জানিয়েছন
বিশিষ্ট
তেল মন্ত্রী ।
*সাইকেলের
সাথে ধাক্কা খেয়ে একটি ট্রাক
বিধস্ত হয়েছে।
এই ঘটনায় সাইকেলের
চেন
পড়ে যায়।
এতে সাইকেল চালক
মতিন খুব্দ
হয়ে কালকেথেকে সারাদেশ
২১.৪
মিনিটের হরতালের
ডাক দিয়েছে।
* অবরোধে খুললেই
যানবাহনের
এক্সিডেন্ট
এর আশঙ্কায় অবরোধ
খোলা হবে না,
মন্তব্য sokenar ।
*
মশা মারতে গিয়ে কানের
পর্দা ফাটিয়ে
দেন্দা হলেন লাকু
কুমার, মশার
প্রতি তীব্র
রাগের
কারনে জোরে মেরেছিলেন
৷এমন
অত্যাচারে ক্ষিপ্ত
মশা জনগোষ্ঠী……
** সব
শেষে আবহাওয়া কাল
সারা দেশে ঘন্টায়
২৬৪৮০মাইল
বেগে ঝোড়ো হাওয়া বয়েযেতে
পারে,
এজন্নে কোনো সংকেত
দেখাতে বলা হয়নি !!??

### আজব চ্যাট ###’

ছেলে : কি করো?
মেয়ে : চ্যাট করি।
ছেলে : কার সাথে?
মেয়ে : ৩ জনের সাথে।
ছেলে : কে কে ?
মেয়ে : এক জন ভালোবাসার মানুষ,
এক
জন সুখ দুঃখের সাথী, আর এক জন আমার
সব চেয়ে কাছের বন্ধু।
ছেলে : এক সাথে ৩ জনের সাথে।
মেয়ে : তো কি হইছে !
ছেলে : আমি তোমার মত না।
মেয়ে : তুমি কেমন ?
ছেলে : আমি যখন তোমার সাথে
চ্যাট
করি, শুধু চ্যাট এ তুমি ই থাকো।
মেয়ে : ভালো তো।
ছেলে : হুম।
মেয়ে : হুম কি? রাগ করেছ ?
ছেলে : না।
মেয়ে : মন খারাপ?
ছেলে : না।
মেয়ে : তাহলে কিছু লেখ না যে?
ছেলে : এমনি।
মেয়ে : আমি জানি তুমি রাগ করেছ।
ছেলে : আরে নাহ, রাগ করার কি
আছে?
মেয়ে : মিথ্যে বল কেন?
ছেলে : তাহলে সত্য কি?
মেয়ে : সত্য তুমি রাগ করেছ।
ছেলে : আমি রাগ করলে কার কি
আসে
যায়?
মেয়ে : সেটাও ঠিক।
ছেলে : আচ্ছা তুমি চ্যাট কর আমি
গেলাম!
মেয়ে : আরে কই যাও শুনে যাও না
কার
সাথে চ্যাট করছি।
ছেলে : বল…।
মেয়ে : আরে পাগল। আমার
ভালোবাসার
মানুষ “তুমি” আমার সুখ দুঃখের সাথী
“তুমি” আমার সব চেয়ে কাছের বন্ধু শুধু ই
তুমি আমি যে তিন জনের সাথে চ্যাট
করছি
সেটা “তুমি” তুমি” তুমি”
(গল্পটা কেমন লাগল আপনার কাছে?
কমেন্ট করে জানাবেন

যাদু

* হাসতে হাসতে লুঙ্গি খুলে গেলে কিন্তু
আমি দায়ী না*
$ একবার কালু আর লালু
দুজনে
এক দোকানে গেল…….
দোকানে সবাইকে কাজে ব্যাস্ত
দেখে কালু ৩টে চকলেট
পকেটে পুরে নিলো।
দোকানের
বাইরে এসে…..
কালুঃ দেখলি তো…..আমি ৩টে
চকলেট তুলে নিলাম,
অথচ
কেউ
কিছু বুঝতেই
পারলো না।
তুই কখনই
এটা করতে পারবি না।
এটা শুনে লালু খুব
রেগে গিয়ে
বললঃ চল, আমি এর
থেকে কিছু
বেশি তোকে দেখাচ্ছি।
তারা দুজনে আবার
দোকানে গেল,
এবং লালু
দোকানদারকে বললঃ আঙ্কেল,
আপনি কি একটা জাদু
দেখবেন?
দোকানদারঃ ঠিক
আছে দেখাও।
লালুঃ তাহলে এরজন্য
আমাকে ১টা চকলেট
দিন।
দোকানদার
লালুকে ১টা চকলেট
দিল।
লালু
সেটা খেয়ে নিয়ে আর
১টা চাইলো।
দোকানদার আবার
১টা দিল।
লালু
সেটা খেয়ে নিয়ে আবার
১টা
চকলেট চাইলো।
দোকানদার এবারও
তাকে চকলেট
দিতেই লালু
সেটাও খেয়ে ফেললো।
দোকানদারঃ আরে বাছা,
এতে
তোর জাদুটা কোথায় ??
লালুঃ উং…চুং…মুং. ….
এবার,
.
.
.
.
.
.
.
.
.
.
আমার বন্ধুর পকেট
চেক
করুণ,
আপনার ৩টে চকলেট
ফেরত
পেয়ে যাবেন….।।
জোকস ভালো লাগলে like /comments
করতে ভুলবেন না।

আববাস আলী (( নিল ))

মেয়ে — এইসব কি ?
ছেলে — কোন সব ?
মেয়ে — In a relationship দিলা কেন ?
ছেলে — প্রেম করছি তাই ।
মেয়ে — মানে কি ?
ছেলে — বাংলা কথা বুঝো না ?
মেয়ে — বুঝি তো ।
ছেলে — আমি তো বাংলাতেই
বলেছি ।
মেয়ে — প্রেম করছো মানে কি ?
ছেলে — প্রেম করছি মানে প্রেম
করছি ।
মেয়ে — আজব ।
ছেলে — আজব এর কি পেলে ?
আমি প্রেম
করতে পারি না নাকি ?
মেয়ে — কার সাথে ?
ছেলে — তা তো বলবো না ।
মেয়ে — কেন ?
ছেলে — তুমি আমার কে হও
যে তোমাকে বলতে হবে ?
মেয়ে — আমি তোমার কেও হই না ?
ছেলে — না ।
মেয়ে — প্লিজ
ফাইজলামি করো না ।
ছেলে — ফাইজলামি করবো কেন ?
মেয়ে — সত্যিই প্রেম করছো ?
( কান্না কান্না ভাব)
ছেলে — হুম সত্যি ।
মেয়ে — এইবার
কেঁদে দিবো কিন্তু ।
ছেলে — কেন ?
মেয়ে — ভালবাসি ।
ছেলে — কাকে ?
মেয়ে — উঁহু । তোমাকে ।
ছেলে — কেন ?
মেয়ে — জানিনা ।
ছেলে — কিন্তু এখন তো আর কিছু
করার নেই

মেয়ে — সত্যিই ভালবাসি ।
ছেলে — এতো দিন বলো নাই কেন ?
মেয়ে — সাহস হয় নি ।
ছেলে — এখন
সাহসটা কোথা থেকে আসলো ?
মেয়ে — এখন তো তুমি অন্যের।
ছেলে — হুম ।
মেয়ে — কি হুম ..?
ছেলে — ভালবাসি ।
মেয়ে — কাকে ?
ছেলে — শুধু তোমাকে ।
মেয়ে — আর ঐ মেয়েটা ?
ছেলে — কোন মেয়েটা ?
মেয়ে — তোমার প্রেমিকা ।
ছেলে — ধুর ,, বোকা মেয়ে ।
মেয়ে — মানে ?
ছেলে — ওটা মিথ্যে ।
মেয়ে — অহেতুক কেন
মিথ্যে বললে ?
(আবেগী অশ্রু)
ছেলে — তোমার মনের
কথাটা জানার জন্য ।
মেয়ে — তুমি খুব খারাপ । খুব
খুব খুব খারাপ ।
ছেলে — তুমি খুব ভালো । খুব খুব
খুব
ভালো ।
মেয়ে — তুমি একটা পাগল ।
ছেলে — তুমি একটা পাগলি ।
মেয়ে — তুমি আমার পাগল ।
ছেলে — তুমি আমার পাগলি ।

★★★ চরম জোকস★★★

এক বুড়া বারে গিয়ে মদ গিলতো। আর
মাতাল হয়ে তার গায়ের চাদর
হারিয়ে আসতো।তাই তার বউ
বুড়াকে খুব ঝাড়তো।
একদিন বুড়া ঠিক
করলো আজকে বারে যাওয়ার
আগে গায়ের সাথে চাদরটা খুব টাইট
করে গিট্টু লাগায় নিবে….তাহলে আর
হারাবে না।
রাতের বেলা হেবি করে মাল টাল
খেয়ে বাসায় বুড়া ফিরলো।।
বুড়িকে ঢলতে ঢলতে বলল,
“দেখেছো..আজকে গায়ের চাদর
ঠিকঠাক আছে….
বুড়ি বলল,”তা ঠিক বলেছো,
..
.
,
.
.
.
.
.
.
.
.
.
.
.
.
.
.
..
.
..
কিন্তু তোমার লুঙ্গি কই???”